Home / মাদ্রাসা / আহমাদিয়া আলিয়া মাদ্রাসা

আহমাদিয়া আলিয়া মাদ্রাসা

আহমাদ আলী পাটওয়ারী (রহ.) দ্বীনদার মুসল্লী গড়ে তোলার লক্ষ্যে মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নিয়েছিলেন।মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে সম্পদিত দলিলে তিনি উল্লেখ করেন যে ‘‘মুসল্লীগণ হলেন মসজিদের খোরাক । এলেম ছাড়া নামাজ রূহ ছাড়া শরীরের মত। এলমে দ্বীন তথা কোরআনের শিক্ষা প্রদানের জন্যে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা অতীব প্রয়োজন ’। সে চিন্তা চেতনার প্রেক্ষিতে তিনি দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তথা মাদ্রাসা গড়ে তোলেন।

আহমাদ আলী পাটওয়ারী (রহ.) ১৯৩১ সালে দারুল উলূম আহমাদিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করেন। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে মাদ্রাসাটি শিরক ও বিদাতের বিরুদ্ধে জোরালো ভূমিকা রেখে আসছে। বর্তমান মোতাওয়াল্লী জনাব ড. মো: আলমগীর কবির পাটওয়ারীর প্রত্যক্ষ সহয়োগিতায় মাদ্রাসাটি ১৯৯৫ সালে  কামিল পর্যায়ে উন্নীত হয় এবং এমপিও ভূক্তি লাভ করে। ১৯৯০ সালে থেকে এখানে দাখিল ও আলিম শ্রেণীতে বিজ্ঞান বিভাগ চালু হয়। ২০১৭ সাল হতে সম্পূর্ণ পৃথকভাবে বালিকা শাখা চালু করা হয়। মাদ্রাসাটিতে একটি সদৃদ্ধ কম্পিউটার ল্যাব রয়েছে। বর্তমানে প্রায় ৩০০০ (তিন হাজার) শিক্ষার্থী এখানে অধ্যায়ন করছে। মাদ্রাসা শিক্ষার গুনগতমান ও ফলাফলের ভিত্তিতে জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের স্বীকৃতি লাভ করেছে। ভবিষ্যতে এখানে  অন্যান্য বিভাগ ও শাখা খোলার পরিকল্পনা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.